বঙ্গবন্ধুর সোনারবাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন —-পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

মনিরুজ্জামান,
গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্নেল ( অব) জাহিদ ফারুক শামীম বলেন,জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে তার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।টেকসই উন্নয়ন আর কাঙ্খিত প্রবৃদ্ধি অর্জন তার লক্ষ্য।জনগণের সার্বিক কল্যানের জন্য টেকসই উন্নয়নের খুব প্রয়োজন।

তিনি শুক্রবার দুপুর ১২ টায় ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাকিমুদ্দিনে নদী ভাঙ্গন পরিদর্শন উপলক্ষে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।ইউনিয়ন আ’ লীগ সভাপতি সালাউদ্দিন কাঞ্চন মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় তিনি আরো বলেন,প্রধানমন্ত্রী জানেন, ভোলা একটি দ্বীপ। এখানকার মানুষ প্রতিনিয়ত প্রকৃতির বিরুপ পরিবেশের সাথে সংগ্রাম করে জীবন যাপন করেন।নদী ভাঙ্গন এখানকার মানুষের প্রধান সমস্যা।

এ সমস্যা সমাধানে আমরা ৯.৫১ কিঃ মি বাধ নির্মাণ প্রকল্প হাতে নিয়েছি। নদীর চরিত্র বুঝে আমাদের যাচাই-বাছাইকারী টেকনিক্যাল কমিটি সিদ্ধান্ত নিবে।কখন কাজ শুরু করলে টেকসই হবে।তিনি বলেন,১ কিঃ মি বাধ নির্মাণে দেড় কোটি টাকা খরচ হয়।আর ব্লক দিয়ে করলে খরচ হয় ৮০/৯০ কোটি টাকা।৯ কিঃ মি বাধ নির্মাণ করতেকী পরিমান খরচ হবে আপনারা অনুমান করুন।তাই আমাদের টেকনিক্যাল কমিটি যাচাই-বাছাইয়ের পর কাজ শুরু হবে।আপনাদেরকে একটু ধৈর্য্য ধারণ করতে হবে।বর্তমান সরকারের মেয়াদেই আমরা এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করব ইনশাআল্লাহ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ভোলা-২ আসনেই সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল, আগত অতিথিবৃন্দকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন,বোরহানউদ্দিন – দৌলতখানা উপজেলাবাসীর বড় সমস্যা হচ্ছে নদী ভাঙ্গন সমস্যা।জোয়ার – ভাটার দোলাচলে এখানকার মানুষের জীবন যাপিত হয়।এ আসন থেকে জাতির জনক নির্বাচন হয়েছিলেন।তাই আমাদের যে কোন মূল্যে ভাঙ্গন সমস্যা সমাধান করে জনগনকে সুখে শান্তিতে রাখতে হবে।বাধ নির্মাণ এখানকার জনগনের প্রাণের দাবি।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বোরহানউদ্দিন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কালাম,পৌর মেয়র মোঃ রফিকুল ইসলাম, আ’লীগ সভাপতি জসিম উদ্দিন হায়দার প্রমুখ।