ভোলায় সড়ক দুর্ঘটনায় প্রবাসী নিহত, আহত -২

বোরহানউদ্দিন ( ভোলা) সংবাদদাতাঃ
ভোলার বোরহানউদ্দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় সুমন নামক এক প্রবাসী নিহত ও ২ জন আহত হয়েছে। শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ভোলা-চরফ্যাশন আঞ্চলিক সড়কের টগবী ইউনিয়নের উদয়পুর রাস্তা মাথার বাজার সংলগ্ন ওমর আলী হাজী বাড়ীর দরজায় পিকআপ-অটোরিকশা মুখোমুখি সংঘর্ষে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।
নিহত সুমন ওই ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা জয়নাল আবেদীনের ছেলে। ভোলা সদর হাসপাতালের দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য মো. মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ৮টার দিকে সুমন স্থানীয় একটি বাজার থেকে অটোরিকশাযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। অটোটি বোরহানউদ্দিন উপজেলার উদয়পুর রাস্তা মাথা এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা মাছবোঝাই একটি পিকআপের সঙ্গে অটোরিকশাটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে রিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। আহত হয় রিকশায় থাকা সুমন, রাসেল ও রিকশাচালক রফিকুল ইসলাম।

তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা মুমূর্ষু অবস্থায় সুমন ও রফিকুলকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। রাসেলকে উদ্ধার করে বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করানো হয়। রাত সাড়ে ৯টার দিকে ভোলা সদর হাসপাতালে সুমন ও রফিককে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে অটোরিকশা ড্রাইভার রফিকুল ইসলামের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে বরিশাল শেরে-বাংলা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।জীবন মাহমুদ নামক পুলিশের এক সদস্য শেরে – ই বাংলা মেডিকেল কলেজ, বরিশাল থেকে জানান,আহত রফিক এর রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়েছে।কিছুক্ষণ পরে ডাক্তার দেখতে আসবে।

নিহত সুমনের মামা মো. শরিফুল ইসলাম জানান, ১৫-২০ দিন আগে সুমন ওমান থেকে বিয়ে করার উদ্দেশে দেশে এসেছিলেন। ইতিমধ্যে কয়েক জায়গায় পাত্রীও দেখা হয়েছিল। জমকালো আয়োজনে তাকে বিয়ে করানোর আশা ছিল পরিবারের। কিন্তু হঠাৎ করে সড়ক দুর্ঘটনায় তাঁর মৃত্যু হওয়ায় পরিবারের সব স্বপ্ন মাটি হয়ে গেল।

বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি শুনে তিনি ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি টিম পাঠিয়েছেন। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।