তীব্র তাপদাহের পর ভোলায় স্বস্তির বৃষ্টি

মনিরুজ্জামান, বোরহানউদ্দিন

এপ্রিল মাস জুড়ে তীব্র তাপদাহের পর স্বস্তির বৃষ্টিতে ভিজল ভোলার বোরহানউদ্দিন ।

সোমবার (৬ মে) দুপুর ২.৩০ থেকে থেমে থেমে এবং রাতে শুরু হওয়া এ বৃষ্টিতে খুশি বোরহানউদ্দিন বাসী।বৃষ্টির কারণে তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় জনজীবনে স্বস্তি ফিরে এসেছে। দুপুরে (৬ মে) হঠাৎ তীব্র ধূলিঝড়ের সঙ্গে শুরু হয় বৃষ্টি।

এতে ক্ষণিকের বৃষ্টির পরশে যেন একটু স্বস্তির নিশ্বাস ফেলে এ জেলার মানুষজন।
গত মাস জুড়ে এখানে এত বেশি উত্তাপ ছিল, যা ক্রমান্বয়ে সাধারণ মানুষের জীবনকে অস্থির করে তুলেছিল। তীব্র তাপদাহের সঙ্গে লোডশেডিং ও ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছিল জনজীবন।ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়ে গোটা উপজেলায়।

ভোলা আবহাওয়া অফিসের সিনিয়র পর্যবেক্ষক মো মনিরুল ইসলাম জানান, কয়েক দিন ধরে তাপমাত্রা ৩৭ থেমে ৩৮ ডিগ্রির মধ্যে ওঠানামা করছিল। বৃষ্টিপাতের কারণে তাপমাত্রা কমে এসেছে।

নিমাই চন্দ্র দে নামের যুবক বলেন, সত্যিই এ বৃষ্টিটা স্বস্তির ও প্রশান্তির। রাতের ঘুমটা খুব ভালো হয়েছে।
পৌর সভার ১ ওয়ার্ডে বসবাস করেন গৃহিনী হাসনা ফেরদৌস। বৃষ্টিতে সামান্য হলেও স্বস্তি নেমেছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ‘অনুভূতিটা অন্যরকম। যদি বৃষ্টি দীর্ঘস্থায়ী হয়, তবে গরম কমবে।’

সরকারি আব্দুল জব্বার কলেজের শিক্ষার্থী ইয়াসমিন বেগম, বোরহানউদ্দিন মহিলা কলেজের রেহানা আকতার বলেন, ‘প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছে। অনেক দিন পর হঠাৎ বৃষ্টিতে যে অনুভূতি, তা বোঝানো কঠিন। আমরা ভিজতে চেয়েছিলাম।তবে বজ্রপাতের ভয়ে বের ভিজেনি।

পৌর ২নং ওয়ার্ড এলাকার আচমা আকতার নামে শিক্ষার্থী জানান, অভূতপূর্ব। যা চাচ্ছিলাম, ঠিক তাই। কলিজা ঠান্ডা হয়ে গেল